টঙ্গীতে মৃত শ্রমিককের লাশ নিয়ে ব্যবসা!! ২০ ঘন্টা পর লাশ ময়নাতদন্তে – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকাশনিবার , ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ

টঙ্গীতে মৃত শ্রমিককের লাশ নিয়ে ব্যবসা!! ২০ ঘন্টা পর লাশ ময়নাতদন্তে

রাজন ইসলাম রাজু
সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২ ১:০৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

গাজীপুর টঙ্গীর পশ্চিম থানাধীন খাঁপাড়া এলাকার মূল সড়ক রোড সংলগ্ন ফ্যামিলী মেডিকেল জেনারেল হাসপাতাল।

ভবনটির নির্মাণাধীন কাজ করার সময় ৭তলা ভবন হতে পরে গত বৃহস্পতিবার বিকেল গুরুতর আহত হয় হেলাল উদ্দিন।তিনি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী।পরবর্তীতে তার সাথে থাকা শ্রমিকরা স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রথমে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায় তাকে। অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে হাসপাতালে পৌছানোর আগেই মৃত্যু হয় হেলাল উদ্দিনের।
নিহত হেলালের ভাই হাফিজুল ইসলাম বলেন, বৃহস্পতিবার বিকেলে আমরা ভাইয়ের দূর্ঘটনার খবর শুনে আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে যাই, সেখানে গিয়ে জানতে পারি ভাইকে উন্নত চিকিৎসা জন্য ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আমাদের জানানো হয়। এর ৩০ মিনিট এর মাথায় বলা হয় আমাদের ভাই আর বেঁচে নেই।আমাদের আসার দরকার নেই ভবন মালিকের লোকজন আর সাথের রাজমিস্ত্রীরা লাশ নিয়ে আসতেছে।সেই থেকেই অপেক্ষা করতে থাকি আমরা। রাত সাড়ে ৮টার দিকে লাশ নিয়ে এসে রাখা হয় হোসেন মার্কেট এলাকার ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে জরুরি বিভাগের বারান্দায়। ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আশ্বাসে সারা রাত স্থানীয় নেতা ও ওই ভবনের মালিক পক্ষের লোক পরিচয় দানকারী কবির বেপারী ওরফে পিস্তল কবির লাশ ফেলে রাখে।পরদিন শুক্রবার সকালের দিকে লাশ পচন ধরলে, তড়িঘড়ি করে লাশবাহী ফ্রিজিং গাড়িতে ভোর ৫টার দিকে তুলে দিয়ে নিরুদ্দেশ হয়ে যায় পিস্তল কবিরের লোকজন। সকালে নিহতের পরিবার থানায় আসলে পিস্তল কবির ও তার লোকজন অভিযোগ করতে নিষেধ করে। বলে তোমাদের ২ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দিব তোমরা থানা পুলিশ কইরো না। কিন্তু কবির সেই আশ্বাস আবারও বঙ্গ করে। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কবির এসে বলে লাশ পোস্টমর্টেম করতে হবে ২০ হাজার টাকা হাতে দিয়ে তিনি এখান থেকে পালিয়ে যায়।

এবিষয়ে জানতে চাইলে কবির বেপারী ওরফে পিস্তল কবির সাংবাদিকের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন, আপনারা সাম্বাদিকরাই সব নষ্টের মূল আপনাদের কারণে এখন লাশ নিয়া এই জামেলা হচ্ছে। আপনাদের কিছু টেহা(টাকা) দেওয়া লাগলে বলতেন আমি দিয়া দিতাম। নিউজ করা, খোঁচা খুঁচির কি দরকার ছিলো।

এবিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মো.শাহ আলম বলেন, মৃত্যুর তিন ঘণ্টা পর শুনতে পাই পরে ঘটনার স্থানে অফিসার পাঠিয়ে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।