একজন আহ‌মেদ রু‌বে‌লের চির বিদায় – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকাশুক্রবার , ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

একজন আহ‌মেদ রু‌বে‌লের চির বিদায়

বার্তা কক্ষ
ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২৪ ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আরিফ হো‌সেন নি‌শির ::

প্রয়াত শক্তিমান অভিনেতা আহমেদ রুবেল ভাই একজন দক্ষ ও শ‌ক্তিমান অ‌ভি‌নেতা। হুমায়ুন ফ‌রিদী ভাই প‌রিচয় ক‌রিয়ে দি‌য়ে‌ছি‌লেন ওনার সা‌থে আমার একুশ বৃতান্ত নাটক নি‌য়ে কাজ করবার জন‌্য। তারপর  আমাদের সম্পর্কটা হ‌য়ে ওঠে ভীষণ স্মৃতিবহুল। যে কোন চরিত্রে আগ্রহ নিয়ে কাজ করতেন রু‌বেল ভাই। আমার প্রিয় আরেক শক্তিমান অভিনেতা প্রয়াত আলী যাকের ভাই। ওনারা কাজ ক‌রে‌ছি‌লেন আমার টে‌লি‌ফিল্ম একুশ বৃত্তান্ত নাট‌কে।  জা‌কের ভাই আর সুঠামদেহ আর ভরাট কন্ঠের আহমেদ রুবেলের সাথে সেই থেকেই আমার সখ্যতা। ফলে তার ভালো আর খারাপ সময়ের অনেক কিছুরই স্বাক্ষী। তার মৃত‌্যুর খবর শুন‌তে হ‌বে এত তাড়াতা‌ড়ি ভাব‌তেও পা‌রি‌নি। ত‌বে সু‌খের কথা হ‌লো রোগে শোকে ভুগে করুণ দিনাতিপাত তাকে করতে হয়নি। চিকিৎসা বা কোনোকারণে অর্থ সাহায্যও চাইতে হয়নি তাকে।দিব্যি সুস্থ মানুষ, ছি‌লেন । ভা‌লো ছি‌লেন।

ঘটনার দিন ৭ ফেব্রুয়া‌রি ২০২৪

‌নিজেরই অভিনীত ‘পেয়ারার সুবাস’ সিনেমার প্রিমিয়ারে যোগ দিতে এসেছিলেন। রাজধানীর বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সের লিফটে ওঠার আগেই গা‌ড়ি‌

থে‌কে নাম‌তে গি‌য়ে অজ্ঞান হয়ে যান৷ সঙ্গে থাকা চলচ্চিত্র নির্মাতা নুরুল আলম আতিক ও সঙ্গীরা তড়িঘড়ি করে নিয়ে যান স্কয়ার হাসপাতালে। ততক্ষণে তিনি চলে গেছেন জাগতিক সকল সুবাসের উর্ধ্বে৷ চিকিৎসকরা ঘোষণা দিলেন, আর বেঁচে নেই আহমেদ রুবেল। নে‌মে আস‌লো শো‌কের ছায়া মি‌ডিয়া পাড়ায়।

মঞ্চ নাটক দিয়ে অভিনয়ে যাত্রা করা জাঁদরেল এক অভিনেতা আহ‌মেদ রু‌বেল চলে গেলেন সঙ্গী সাথীদের ভিড়ে নিরবে, গোপনে৷ চিকিৎসাশাস্ত্রের ভাষায়, হৃদযন্ত্র বিকল হয়েছিল ভরাট কণ্ঠের জন্য প্রখ্যাত এই অভিনেতার। তার প্রয়াণ নিমিষেই শোক নামিয়েছে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে, সারাদেশে অভিনয়প্রেমীদের অন্তরে। চারদিকে আজ আহমেদ রুবেলকে নিয়ে স্মৃতিচারণের সুবাস বইছে।

গত ০৭ ফেব্রুয়া‌রি ২০২৪ বুধবার সন্ধ্যা ৫টা ৫৮ মিনিটে পরপারে পাড়ি জমান আহমেদ রুবেল। তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৫৫ বছর।

১৯৬৮ সালের ৩ মে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের রাজারামপুর গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন আহমেদ রাজিব রুবেল ওরফে আহমেদ রুবেল। তার বাবা অবসরপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল আয়েশ উদ্দিন বেঁচে আছেন। তাকে তখনো খবরটা জানানো হয়নি। ৮১ বছর বয়সী বাবা কীভাবে সন্তানের শোক সামলাবেন, তার কূলকিনারা মিলা‌নো ছিল ক‌ঠিন। গাজীপুরের ছায়াবীথির বাড়িতেই রয়েছেন আয়েশ উদ্দীন। বাবার কাছ থেকে বিদায় নিয়ে বের হয়েছিলেন রুবেল। সেই বিদায় যে চিরবিদায় হবে, তা কে জানত। তিনি মাকে হারিয়েছিলেন করোনার সময়। দুই ভাই ও চার বোনের মধ্যে এক ভাই হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। আহমেদ রুবেলও মারা গেলেন। চার বোনের মধ্যে দুই বোন ঢাকায় থাকেন, দুই বোন থাকেন যুক্তরাষ্ট্রে। তার আরেক ভাইও কয়েক বছর আগে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মা’রা যান। জীবনের শুরুতে বিয়ে করেছিলেন নন্দিত অভিনেত্রী তারানা হালিমকে। সে সংসার টেকেনি তার। অভিনেতার বর্তমান স্ত্রীর নাম মনোয়ারা বেগম। রুবেল-মনোয়ারা দম্পতির কোনো সন্তান নেই। তবে উত্তরসূরী হিসেবে নাটক সিনেমায় অসংখ্য চরিত্র তিনি রেখে গেছেন, যারা যুগের পর যুগ তার প্রতিনিধিত্ব করবে।

শো মাস্ট অন বলে একটা ব্যাপার আছে৷ ব্যান্ড লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চু ভাই মারা গেলেন যেদিন সেদিন বগুড়ায় ছিল বিশাল কনসার্ট। লোকে যখন ভাবছিলেন বাচ্চু ভাই এর মৃত্যুর দিনটাতেও গাইতে হবে জেমসকে, তখন গিটার কাঁধে তুলে নিয়ে মঞ্চে উঠে জেমস যা করেছিলেন তা ছড়িয়ে গিয়েছিল সারা বাংলাদেশ। জেমস আর তার গিটারের কান্নার সেই ভিডিওটি দেখলে আজও হু হু করে কান্না আসে আমার। সেদিন তিনি আইয়ুব বাচ্চুর স্মরণে আকাশের দিকে আঙ্গুল তুলে বলেছিলেন, বাচ্চু ভাই, আপনি সবসময় বলতেন যাই হোক না কেন দ্য শো মাস্ট গো অন। আমরা গাইছি বাচ্চু ভাই, আপনি শান্তিতে শুনুন। একইভাবে যখন আহমেদ রুবেল হাসপাতালে নিথর দেহ নিয়ে শুয়ে আছেন তখন স্টার সিনেপ্লেক্সে চলেছে ‘পেয়ারার সুবাস’ সিনেমার পূর্ব নির্ধারিত প্রিমিয়ার শো। সেখানে সবাই অশ্রুসিক্ত হয়ে আহমেদ রুবেলকে স্মরণ করেছেন, তাকে হারানোর কাঁচা শোক বুকে নিয়ে চোখ মুছেছেন। পেয়ারার সুবাস ছবিটাও তাকে উৎসর্গ করা হয়েছে। ছবির কর্তৃপক্ষ চাইছিলেন শোটা বাতিল হোক। কিন্তু উপস্থিত দর্শক ও সাংবাদিকদের পরামর্শে তারা সিনেমার প্রদর্শনী করেন। যাই হোক না কেন, দ্য শো মাস্ট গো অন, এটাই প্রমাণ হলো।

বৃহস্প‌্রতিবার গাজীপুরে নিজ বাড়িতে চিরনিদ্রায় যাবেন আহমেদ রুবেল। ৯ ফেব্রুয়া‌রি ২০২৪ থেকে সারা দেশে চলবে তার অভিনীত পেয়ারার সুবাস। তাকে হারানোর দগদগে ঘা নিয়ে সিনেমাটি দেখবেন দর্শক৷ অনেকেই হয়তো জাঁদরেল এই অভিনেতাকে আর নতুন কোনো চরিত্রে দেখা যাবে না ভেবে হাহাকারে চোখের জল মুছবেন। এভাবেই অভিনয়ে চিরকাল বইবে আহমেদ রুবেলের সুবাস । নিয়‌তির এটাই প‌রিন‌তি রু‌বেল ভাই ইহ‌লোক থে‌কে তোমা‌কে বিদায়। অন‌ন্তে তু‌মি ভা‌লো থা‌কো।

# লেখক  দৈ‌নিক মুক্ত বাংলার সম্পাদক ও প্রকাশক ।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।