৭৪ ব‌লে ১১৫ কর‌লেই সেমিতে উঠ‌বে বাংলাদেশ – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকামঙ্গলবার , ২৫ জুন ২০২৪
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ

৭৪ ব‌লে ১১৫ কর‌লেই সেমিতে উঠ‌বে বাংলাদেশ

বার্তা কক্ষ
জুন ২৫, ২০২৪ ৯:৩০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

জা‌কির হো‌সেন ক্রীড়া প্রতি‌বেদক ::

আফগানিস্তানের বিপক্ষে জিততে পারলে সেমিতে ওঠার সম্ভাবনা তৈরি হবে বাংলাদেশের। কিন্তু সুপার এইটে প্রথম দুই ম্যাচ বাজেভাবে হেরে যাওয়ার পলে বাংলাদেশের রান রেট অনেক পিছিয়ে।  -২.৪৮৯।  জয় পেলেও এত কম রান রেট থেকে কিভাবে আফগানিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়াকে পেছনে ফেলতে পারবে বাংলাদেশ?

টস জিতে ব্যাট করতে নামা আফগানিস্তানের সংগ্রহ ১১৫ রানের পরই শুরু হয় সেই হিসাব নিকাশ। রানরেটে অস্ট্রেলিয়া এবং আফগানিস্তানকে টপকাতে হলে বাংলাদেশকে ১১৫ রান তাড়া করতে হবে ১২.১ ওভারে। তাহলেই কেবল সেমিফাইনালে উঠতে পারবে টাইগাররা।

যদিও এত কম বলে বাংলাদেশ এই রান তাড়া করতে পারবে কি না, তা নিয়ে একটা শঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। কারণ, আফগানিস্তানের ইনিংস শেষ হওয়রা সঙ্গে সঙ্গেই সেন্ট ভিনসেন্টে নামে বৃষ্টি। বৃষ্টি শেষে খেলা শুরু হলে বাংলাদেশের অফ ফর্মে থাকা ব্যাটাররা কী পারবে ১২.১ ওভারে ১১৫ রানের লক্ষ্য পাড়ি দিতে।

আফগানদের করা ১১৫ রানের সমান স্কোর করে ম্যাচ টাই করে ছক্কা মারলে ১২.৫ ওভারে জিতলেও হবে। আবার টাই করে বাউন্ডারি মারলে জিততে হবে ১২.৩ ওভারে। বাংলাদেশ দল কী পারবে এত জটিল সমীকরণ মিলিয়ে আফগানদের হারিয়ে সেমিতে জায়গা কর‌তে পা‌রবে।

শেষ ওভারে ২টি ছক্কা হজম করে ফেললেন তানজিম হাসান সাকিব। পুরো ইনিংসে রান নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলেও শেষ ওভারের ১৫ রানই আফগানিস্তানকে চ্যালেঞ্জিং স্কোর এনে দিতে সক্ষম হলো।  বাংলাদেশকে শেষ পর্যন্ত ১১৬ রানের লক্ষ্য দিলো আফগানিস্তান।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের বোলারদের ভালোই মোকাবেলা করতে শুরু করেছিলেন দুই আফগান ওপেনার রহমানুল্লাহ গুরবাজ ও ইবরাহিম জাদরান। যদিও খুব বেশি চড়াও হতে পারছিলেন না তারা। উইকেট না পেলেও রানের গতি নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই রেখেছিলেন বাংলাদেশের বোলাররা।

তবে চাপের মধ্যে রেখে ৫৯ রানে ভাঙেন উদ্বোধনী জুটি।  উইকেট নিয়েছিলেন রিশাদ হোসেন।  ১৮ রান করে আউট হন ইবরাহিম জাদরান। এরপর ৮৪ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটান মোস্তাফিজুর রহমান।  ১০ রান করে আউট হন আজমতউল্লাহ ওমরজাই।

দলীয় ১৭তম ওভারে নিজের তৃতীয় ওভারে বল করতে এসে এবার আরও বেশি বিধ্বংসী হলেন রিশাদ হোসেন।  এক ওভারেই নিলেন ২ উইকেট। ফেরালেন দুই মারকুটে ব্যাটার রহমানুল্লাহ গুরবাজ এবং গুলবাদিন নাইবকে। ৫৫ বলে ৪৩ রান করেন রহমানুল্লাহ গুরবাজ। গুলবাদিন নাইব করেন ৪ রান।  ১ রান করা মোহাম্মদ নবির উইকেট নেন তাসকিন আহমেদ।

এর আগে ব্যাট করতে নামার পর শুরুতেই একটি রানআউটের সম্ভাবনা মিস হয়েছিলো। সরাসরি থ্রোতে স্ট্যাম্প ভাঙলেও রানআউট হয়নি।  এরপর সাকিব আল হাসানের বলে ক্যাচ উঠেছিলো। কিন্তু তাওহিদ হৃদয় সেই ক্যাচটি হাতের তালুতে জমিয়ে রাখতে পারেননি।

শেষ পর্যন্ত আফগানদের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন রিশাদ হোসেন। নিজের দ্বিতীয় ওভারে এসে ইবরাহিম জাদরানকে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন রিশাদ। ১১তম ওভারের চতুর্থ বলে ভাঙে আফগানদের ৫৯ রানের জুটি। ২৯ বলে ১৮ রান করে আউট হন ইবরাহিম জাদরান।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।