রত্নগর্ভা মা – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকামঙ্গলবার , ২ জুলাই ২০২৪
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ

রত্নগর্ভা মা

বার্তা কক্ষ
জুলাই ২, ২০২৪ ৬:৫০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিহার সরকার ::

শুনশান রেল স্টেশন, দিনের শেষ ট্রেনটি প্লাটফর্ম ছেড়ে চলে গেছে। এক বৃদ্ধা বসেই আছেন। জানেন না পরের ট্রেনটি আসবে পরের দিন। এক কুলির নজর গেল সেদিকে।

– মাইজি, তুমি কোথায় যাবে?
– দিল্লি যাব বাবা ছেলের কাছে।
– আজকে তো আর ট্রেন নেই মাইজি।

বৃদ্ধার অসহায় দৃষ্টি। কুলিটির বোধহয় দয়া হল।

– মাজি তোমায় ওয়েটিং রুমে রেখে আসি।
– তাই চল বাবা। কি আর করব!
– তোমার ছেলে বুঝি দিল্লিতে থাকে?
– হ্যাঁ বাবা।
– কি করে?
– রেলে কি যেন একটা কাজ করে!
– নামটা বল দেখি। যোগাযোগ করা যায় কিনা দেখছি।
– ও তো আমার লাল। সবাই ওকে লাল বাহাদুর শাস্ত্রী বলে ডাকে যে!

তিনি তখন ভারতীয় রেলওয়ের ক্যাবিনেট মিনিস্টার। মুহূর্তের মধ্যে গোটা স্টেশন তোলপাড়। কিছুক্ষণের মধ্যেই চলে এলো সালুন কার। বৃদ্ধা অবাক। তাঁর ছেলের এত ক্ষমতা!

লাল বাহাদুর কিছুই জানতেন না। সমস্ত আয়োজন করেছিল ভারতীয় রেল।

পরিশেষে একটিই কথা। এমন মা না হলে অমন ছেলে হয়? এই রকম নেতা এখন দুর্লভ, এঁরা ক্ষমতা প্রতিপত্তির জন্য পদে বসেননি, এঁরাই পদকে অলংকৃত করেছেন।

ছেলের দেখা পাওয়ার পর
তিনি ছেলেকে জিজ্ঞাসা করলেন – “বেটা , তু রেলমে কেয়া কাম করতে হো? এলোগ পুছা তো ম্যায়নে কুছ নেহি বোলপায়া।”

তার উত্তরে ছেলে বলেছিলেন – “ছোটি সি কাম মা”।

# ছবিটা AI দিয়ে বানা‌নো।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।