স্যাটেলাইটে ধরা পড়ল ৩০০ কিলোমিটারের ফাটল – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকাশনিবার , ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ

স্যাটেলাইটে ধরা পড়ল ৩০০ কিলোমিটারের ফাটল

সম্পাদক
ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২৩ ১০:৩২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতি‌বেদক ::

তুরস্কে ভূমিকম্পের গভীর বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধানে দেশটির ভূখণ্ডে দুটি ফাটলের সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এর মধ্যে একটি ফাটল ৩০০ কিলোমিটার লম্বা। আরেকটি ফাটলের দৈর্ঘ্য ১২৫ কিলোমিটার। বিজ্ঞানীরা বলছেন, গত সোমবার তুরস্ক ও সিরিয়ায় আঘাত হানা ভূমিকম্প কতটা শক্তি নির্গত করেছিল, ফাটলগুলো তার প্রমাণ। ফাটলগুলোর সন্ধান পেয়েছেন যুক্তরাজ্যের সেন্টার ফর দ্য অবজারভেশন অ্যান্ড মডেলিং অব আর্থকুয়াকস, ভলকানোস অ্যান্ড টেকটোনিকসের (কমেট) বিজ্ঞানীরা। সেন্টিনেল-১ নামের একটি স্যাটেলাইট থেকে ভূমিকম্পের আগে ও পরে তোলা ছবি যাচাই করে ফাটল দুটি খুঁজে বের করেছেন তারা। খবর বিবিসি ও এনডিটিভির

এতে যে ডেটা ব্যবহার করে এই মানচিত্র তৈরি করা হয়েছে তা সংগ্রহ করা হয় ইউরোপীয় ইউনিয়নের সেন্টিনেল-ওয়ান-এ স্যাটেলাইট দিয়ে শুক্রবার একেবারে রাতের প্রথম প্রহরে। স্যাটেলাইটটি তখন তুরস্কের সাতশো কিলোমিটার উপর দিয়ে উত্তর থেকে দক্ষিণে যাচ্ছিল। সেন্টিনেল স্যাটেলাইটে এমন একটি রেডার বহন করা হয়, যেটি দিয়ে যে কোন আবহাওয়ায় মাটির স্পন্দন ধরা যায়। এই স্যাটেলাইট দিয়ে বিশ্বের ভূমিকম্প-প্রবণ অঞ্চলগুলোর ওপর নিয়মিত নজর রাখা হয়। বিশ্বের ভূপৃষ্ঠের সামান্যতম পরিবর্তনও এটি দিয়ে ধরা যায়।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, গত সোমবার তুরস্ক ও সিরিয়ায় আঘাত হানা ভূমিকম্প কতটা শক্তি নির্গত করেছিল, ফাটলগুলো তার প্রমাণ। সোমবার যে পরিবর্তনগুলো ধরা পড়েছিল, সেগুলো মোটেই সূক্ষ্ম ছিল না। এগুলো ছিল বেশ নাটকীয়। ভূমিকম্পের ফলে ভূমি বেঁকে গেছে, ধসে পড়েছে, এমনকি কোথাও কোথাও ফেটে চৌচির হয়ে গেছে। গবেষকরা ভূমিকম্পের আগের এবং পরের চিত্র তুলনা করেছেন নানা ধরণের কৌশল ব্যবহার করে। তবে ভূমিকম্পের কী ফল হয়েছে সেন্টিনেল স্যাটেলাইটের সর্বশেষ ম্যাপ দেখে তা বুঝতে বিশেষজ্ঞ হওয়ার দরকার নেই। এই ছবির লাল রং দিয়ে বোঝানো হয়েছে স্যাটেলাইটটি যখন সর্বশেষ তুরস্কের ওপর দিয়ে যাচ্ছিল, তখন সেখানকার ভূমি কিভাবে স্যাটেলাইটের দিক বরাবর সরছিল। আর নীল রং দিয়ে চিত্রিত করা হয়েছে ভূমি কিভাবে স্যাটেলাইটের উল্টো দিকে সরে যাচ্ছিল। ছবিতে এটা খুবই স্পষ্ট পূর্ব আনাতোলিয়ান ফল্টলাইন বরাবর তুরস্কের ভূপৃষ্ঠ কিভাবে পাল্টে গেছে।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার তুরস্ক ও সিরিয়ায় শক্তিশালী দুটি ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল। সেদিন ভোর ৪টা ১৭ মিনিটে আঘাত হানা ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮। এর ৯ ঘণ্টা পরে ৭ দশমিক ৫ মাত্রার আরেকটি ভূমিকম্প হয়। এসব ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত সাড়ে ২৪ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।