মির্জা আব্বাসের দুর্নী‌তির মামলা চল‌বে – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ

মির্জা আব্বাসের দুর্নী‌তির মামলা চল‌বে

সম্পাদক
ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২৩ ৬:১৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

নিজস্ব প্রতি‌বেদক ::

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস- জ্ঞাত-আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলা বাতিলে আপিল বিভাগের রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে যে আবেদন করেছিলেন, তা খারিজ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে সাবেক এই গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলাটি বিচারিক আদালতে চলতে আর কোনো বাধা নেই।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী খুরশীদ আলম খান এ তথ্য জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) এ সংক্রান্ত বিষয়ে শুনানি নিয়ে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আবদুর রেজাক খান ও সগীর হোসেন লিয়ন। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

এর আগে, গত ২৫ অক্টোবর হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। পরে মির্জা আব্বাস রিভিউ চেয়ে আবেদন করেন।

মির্জা আব্বাসের আইনজীবী সগীর হোসেন লিয়ন বলেন, ১৯৯০ সাল থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত আয়কর পরিশোধ নিয়ে দায়ের হওয়া মামলায় মির্জা আব্বাসের দণ্ড হয়। আপিলের পর সেই দণ্ডের রায় বাতিল হয় এবং মির্জা আব্বাস খালাস পান।

আইনজীবী বলেন, পরে একই রকম ফ্যাক্টসে দুদক একটি মামলা করে। সেই মামলায় আমরা বিচারিক আদালতে আবেদন জানিয়ে বলেছি, একই বিষয়ে দুইবার মামলা চলতে পারে না।  বিচারিক আদালত আবেদনটি খারিজ করে দেন। এরপর হাইকোর্টে আবেদন করি। পরে হাইকোর্টেও আবেদন খারিজ হয়। এরপর আপিল বিভাগে পুনর্বিবেচনার আবেদন করি। আপিল বিভাগও আজ (বৃহস্পতিবার) আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।