সময় বিচার বিভাগের নেতৃত্ব দেবেন নারীরা: প্রধান বিচারপতি – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকাবুধবার , ১ মার্চ ২০২৩
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

 সময় বিচার বিভাগের নেতৃত্ব দেবেন নারীরা: প্রধান বিচারপতি

সম্পাদক
মার্চ ১, ২০২৩ ১১:০০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতি‌বেদক ::

প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বলেছেন, ‘আমার বিশ্বাস এক সময় বিচার বিভাগের নেতৃত্ব দেবেন নারীরা। ’ বুধবার (০১ মার্চ) সুপ্রিম কোর্ট অডিটোরিয়ামে দুটি বইয়ের প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

আপিল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের লেখা ‘বঙ্গবন্ধু-রবীন্দ্রনাথ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ’ও তার সহধর্মিণী নাফিসা বানুর লেখা ‘বঙ্গবন্ধু শুদ্ধাচার নারীর ক্ষমতায়ন ও অন্যান্য’ বইয়ের প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধান বিচারপতি বলেন,  আমরা যখন জুডিসিয়াল সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষা নেই, তখন দেখেছি, পুরুষদের চেয়ে আমাদের নারীরা অনেক বেশি পরিশ্রমী।

আমাদের নারীরা অনেক এগিয়ে। জুডিসিয়ারিতে ভাইভাবোর্ডে পুরুষেরা ইনিবিনিয়ে প্রশ্নের জবাব দেন।

কিন্তু নারীরা দেখেছি সুন্দর করে আস্তে আস্তে টু দ্য পয়েন্টে উত্তর দেয়। নারী বিচারকেরা অনেক ভালো করছেন।তিনি আরও বলেন,  আমরা সাম্প্রদায়িত-অসাম্প্রদায়িক, এই প্রশ্ন বার বার তুলি। প্রকৃতপক্ষে আমাদের নিজেদের চরিত্রটাই সাংঘর্ষিক। যখন গুজরাটে দাঙ্গা হলো, তখন এই দেশের মুসলমানরা বলতে লাগলো, গুজরাটে যদি এখন ধর্মনিরপেক্ষ সরকার থাকতো, তাহলে অবস্থা এই রকম হতো না। আর আমাদের দেশে যখন কোনো ঘটনা ঘটে তখন সেই অসাম্প্রদায়িক মানুষ গুলোই সাম্প্রদায়িক হয়ে যান।

অনুষ্ঠানের মূখ্য আলোচক ইতিহাস অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন বলেছেন এখনো বাংলাদেশের ৩০ ভাগ মানুষ বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা হিসেবে মানে না। এ প্রসঙ্গে প্রধান বিচারপতি বলেন, তারা সেই সকল লোক, যারা পাকিস্তানি বাহিনী আত্মসমর্পণ করার পরেও বাংলাদেশকে স্বীকার করেনি। তারা সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশে গিয়ে স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কাজ করছেন।

বইয়ের বিষয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, বিচারপতি ওবায়দুল হাসান যে বই লিখেছেন, তার প্রতিটা লেখার ভেতর তার অসাম্প্রদায়িক চিন্তা চেতনা, মানুষ সম্পর্কে তার অনুভূতি ফুটে উঠেছে। নাফিসা বনুর বইয়েও তার চিন্তা চেতনা, জ্ঞান ও প্রজ্ঞার এক অনন্য সম্মিলন ঘটিয়েছেন।

আপিল বিভাগের বিচারপতি মো.নূরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি ও আইন কমিশনের চেয়ারম্যান এবিএম খায়রুল হক, সাবেক প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, আপিল বিভাগের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম, অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন, প্রখ্যাত স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. রওশন আরা বেগম, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোমতাজ উদ্দিন ফকির, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, জার্নিম্যান প্রকাশনীর প্রকাশক কবি তারিক সুজাত এবং মাওলা ব্রাদার্সের প্রকাশক আহমেদ মাহমুদুল হক।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।