রিকসাচালক‌কে প্রকা‌শ্যে মার‌ধোর কর‌লেন ম‌হিলা আইনজী‌বি – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকাসোমবার , ৮ মে ২০২৩
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রিকসাচালক‌কে প্রকা‌শ্যে মার‌ধোর কর‌লেন ম‌হিলা আইনজী‌বি

সম্পাদক
মে ৮, ২০২৩ ৯:৪৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতি‌বেদক ::

প্রকাশ্যে রিকশাচালককে মারধর করছেন এক নারী আইনজীবী। মারতে মারতে তাকে রিকশার লাইসেন্স বাতিলেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এমন একটি ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে।

প্রকাশ্যে রিকশাচালককে মারধর করছেন এক নারী আইনজীবী। মারতে মারতে তাকে রিকশার লাইসেন্স বাতিলেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এমন একটি ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে।

রবিবার (৭ মে) দুপুরে যশোর আদালতের সামনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সড়কে এই ঘটনা ঘটে বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে দৈনিক প্রথম আলোর অনলাইন সংস্করণ।

এ ঘটনা ঘটিয়েছেন আইনজীবী আরতি রানী ঘোষ। তিনি শহরের আম্বিকা বসু লেনে থাকেন। ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর বিষয়টি নিয়ে নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে ফেসবুকে।

এ বিষয়ে যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. ইসাক বলেন, রিকশাচালককে রাস্তায় প্রকাশ্যে মারধর করার যে ঘটনা ঘটেছে, সেটা অনাকাঙ্ক্ষিত ও অনভিপ্রেত। সমিতি ওই রিকশাচালকের কাছে দুঃখ প্রকাশ করবে। একই সঙ্গে আইনজীবী আরতি রানী ঘোষকে সতর্ক করা এবং সমিতির বিধিবিধান অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ৬ মিনিট ৩৯ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা গেছে, কালো গাউন পরা এক আইনজীবী প্রেসক্লাবের সামনে রিকশাচালকের জামার কলার ধরে চড় দিচ্ছেন। মারতে মারতে তিনি চালককে রিকশার চাবি নিয়ে পৌরসভায় যেতে বলেন। জামার কলার ধরে বারবার রিকশাচালককে পৌরসভায় নিয়ে গিয়ে লাইসেন্স বাতিল করার হুমকিও দিতে দেখা যায়।

একপর্যায়ে রিকশাচালক হাত উঁচু করে মাফ চান। এরপরও ওই আইনজীবী চড়াও হন। পথচারীরা তাকে থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।

ভিডিওতে পথচারীদের বলতে শোনা যায়, ওই আইনজীবী রিকশাচালককে জুতাপেটাও করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা প্রতিবাদ করলেও আরতি রানী রিকশাচালককে চড় মেরেই যাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে এক নারী এগিয়ে এসে প্রতিবাদ করলে ক্ষান্ত হন তিনি।

তখন ওই রিকশাচালক ঘটনাস্থল থেকে রিকশা নিয়ে চলে যান।

প্রত্যক্ষদর্শী যশোর প্রেসক্লাবের অফিস সহকারী মীর রবিউল ইসলাম বলেন, বারবার অনুরোধের পরেও ওই নারী আইনজীবী কারও কথা শোনেননি। রিকশাচালককে তিনি সমানে মেরেই যাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে সড়কে অবস্থান করা বিভিন্ন পথচারী প্রতিবাদ করলে তিনি কিছুটা শান্ত হন।

এ বিষয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করলে সোমবার দুপুরে আইনজীবী আরতি রানী ঘোষের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায় বলে জানিয়েছে প্রথম আলো।

তবে অন্য সাংবাদিকদের কাছে আরতি রানি দাবি করেছিলেন, আদালত শেষে ফেরার পথে রাস্তা অতিক্রমের সময় ওই রিকশাচালকের ধাক্কায় তিনি পড়ে গিয়ে আহত হন। এ কারণে তাকে চড় দিয়েছেন। উত্তেজিত হয়ে এই কাজ করে ফেলেছেন।

রবিবার (৭ মে) দুপুরে যশোর আদালতের সামনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সড়কে এই ঘটনা ঘটে বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে দৈনিক প্রথম আলোর অনলাইন সংস্করণ।

এ ঘটনা ঘটিয়েছেন আইনজীবী আরতি রানী ঘোষ। তিনি শহরের আম্বিকা বসু লেনে থাকেন। ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর বিষয়টি নিয়ে নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে ফেসবুকে।

এ বিষয়ে যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. ইসাক বলেন, রিকশাচালককে রাস্তায় প্রকাশ্যে মারধর করার যে ঘটনা ঘটেছে, সেটা অনাকাঙ্ক্ষিত ও অনভিপ্রেত। সমিতি ওই রিকশাচালকের কাছে দুঃখ প্রকাশ করবে। একই সঙ্গে আইনজীবী আরতি রানী ঘোষকে সতর্ক করা এবং সমিতির বিধিবিধান অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ৬ মিনিট ৩৯ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা গেছে, কালো গাউন পরা এক আইনজীবী প্রেসক্লাবের সামনে রিকশাচালকের জামার কলার ধরে চড় দিচ্ছেন। মারতে মারতে তিনি চালককে রিকশার চাবি নিয়ে পৌরসভায় যেতে বলেন। জামার কলার ধরে বারবার রিকশাচালককে পৌরসভায় নিয়ে গিয়ে লাইসেন্স বাতিল করার হুমকিও দিতে দেখা যায়।

একপর্যায়ে রিকশাচালক হাত উঁচু করে মাফ চান। এরপরও ওই আইনজীবী চড়াও হন। পথচারীরা তাকে থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।

ভিডিওতে পথচারীদের বলতে শোনা যায়, ওই আইনজীবী রিকশাচালককে জুতাপেটাও করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা প্রতিবাদ করলেও আরতি রানী রিকশাচালককে চড় মেরেই যাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে এক নারী এগিয়ে এসে প্রতিবাদ করলে ক্ষান্ত হন তিনি।

তখন ওই রিকশাচালক ঘটনাস্থল থেকে রিকশা নিয়ে চলে যান।

প্রত্যক্ষদর্শী যশোর প্রেসক্লাবের অফিস সহকারী মীর রবিউল ইসলাম বলেন, বারবার অনুরোধের পরেও ওই নারী আইনজীবী কারও কথা শোনেননি। রিকশাচালককে তিনি সমানে মেরেই যাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে সড়কে অবস্থান করা বিভিন্ন পথচারী প্রতিবাদ করলে তিনি কিছুটা শান্ত হন।

এ বিষয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করলে সোমবার দুপুরে আইনজীবী আরতি রানী ঘোষের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায় বলে জানিয়েছে প্রথম আলো।

তবে অন্য সাংবাদিকদের কাছে আরতি রানি দাবি করেছিলেন, আদালত শেষে ফেরার পথে রাস্তা অতিক্রমের সময় ওই রিকশাচালকের ধাক্কায় তিনি পড়ে গিয়ে আহত হন। এ কারণে তাকে চড় দিয়েছেন। উত্তেজিত হয়ে এই কাজ করে ফেলেছেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।