ওয়াসার কমিশনের ২৪৮ কোটি টাকা কর্মকর্তা‌দের প‌কে‌টে – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকাবুধবার , ১০ মে ২০২৩
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ
 
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ওয়াসার কমিশনের ২৪৮ কোটি টাকা কর্মকর্তা‌দের প‌কে‌টে

সম্পাদক
মে ১০, ২০২৩ ২:৫৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিশেষ প্রতিনিধি ::

ঢাকা ওয়াসার প্রোগ্রাম ফর পারফরম্যান্স ইমপ্রুভমেন্ট (পিপিআই) কার্যক্রমের ২৪৮ কোটি ৫৫ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটির তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বুধবার দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সংস্থাটির সহকারী পরিচালক মো. আশিকুর রহমান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ২০১০ সাল থেকে ২০২০ পর্যন্ত ১১ বছরে ঢাকা ওয়াসা ও ঢাকা ওয়াসা কর্মচারী বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী পিপিআই কার্যক্রমে কমিশন হিসেবে ৩৫৪ কোটি ১৬ লাখ ৬৬ হাজার টাকা ব্যাংকে জমা হয়। কিন্তু দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা মিলেমিশে ২৪৮ কোটি ৫৫ লাখ টাকা নিজেদের পকেটে ভরেছেন।

মামলায় আসামি করা হয়েছে, ঢাকা ওয়াসার সাবেক রাজস্ব পরিদর্শক ও পিপিআই প্রকল্প পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান, ওয়াসার সাবেক রাজস্ব পরিদর্শক ও পিপিআই পরিচালনা পর্ষদের মো. হাবিব উল্লাহ ভূঁইয়া এবং ঢাকা ওয়াসার রাজস্ব জোন ৬-এর কম্পিউটার অপারেটর মো. নাঈমুল হাসানকে।

ওপরের সারির বড় কর্মকর্তাদের সহায়তা ছাড়া ওয়াসার মধ্যম সারির তিন কর্মকর্তা মিলে এত বড় অঙ্কের অর্থ আত্মসাৎ করার সুযোগ আছে কিনা জানতে চাইলে দুদক সচিব মো. মাহবুবু হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, পিপিআই পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে মো. আক্তারুজ্জামান অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্ব পালন করলেও হিসাব পরিচালনার কোনো নথিপত্রে তার স্বাক্ষর পাওয়া যায়নি। সে কারণে তাকে আসামি করা যায়নি। তবে মামলার তদন্তে যারই সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যাবে, তাকে আসামি করা হবে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঢাকা ওয়াসা কর্মচারী বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের পক্ষে পিপিআই পরিচালনা কমিটির নামে পরিচালিত ব্যাংক হিসাব থেকে অবৈধভাবে ওই টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে দুদকের অনুসন্ধানে প্রমাণিত হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ঢাকা ওয়াসা কর্মচারী ভোগ্যপণ্য সরবরাহ সমবায় সমিতি লিমিটেড ২০০৫ সালে উপআইন সংশোধনীর মাধ্যমে ঢাকা ওয়াসা কর্মচারী বহুমুখী সমিতি লিমিটেড নামে নিবন্ধন লাভ করে। রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যে ১৯৯৬ সালের ২৫ নভেম্বর ঢাকা ওয়াসা ও ঢাকা ওয়াসা কর্মচারী সমবায় সমিতির মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। চুক্তি অনুযায়ী রাজস্ব আদায়, পানির মিটার স্থাপন ও বিল বাবদ প্রথমে ৬ শতাংশ হারে এবং পরবর্তীতে ১০ শতাংশ হারে লভ্যাংশ গ্রহণ করা হয়েছে, যা সমবায় সমিতির সদস্যদের মধ্যে বণ্টনের উদ্দেশ্য থাকলেও তা যথাযথভাবে বণ্টন করা হয়নি।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।