যু্ক্তরাষ্ট্র, ভারতসহ ৬ রাষ্ট্রদূত আর বাড়তি নিরাপত্তা পাবেন না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী – দৈনিক মুক্ত বাংলা
ঢাকাসোমবার , ১৫ মে ২০২৩
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি-ব্যবসা
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরও
  6. ইসলাম ও ধর্ম
  7. কোভিট-১৯
  8. ক্যারিয়ার
  9. খেলা
  10. জেলার খবর
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. বিনোদন
  13. মি‌ডিয়া
  14. মু‌ক্তিযুদ্ধ
  15. যোগা‌যোগ

যু্ক্তরাষ্ট্র, ভারতসহ ৬ রাষ্ট্রদূত আর বাড়তি নিরাপত্তা পাবেন না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সম্পাদক
মে ১৫, ২০২৩ ৮:৪০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক  ::

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, এখন থেকে বিদেশি রাষ্ট্রদূত বা হাইকমিশনাররা আর বাড়তি সুবিধা পাবেন না। তবে কেউ চাইলে তিনি ভাড়া করতে পারবেন। সরকারের এ সিদ্ধান্তের ফলে যু্ক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, সৌদি আরবসহ ছয় দেশের রাষ্ট্রদূতদের জন্য বাড়তি পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়া বন্ধ হচ্ছে।

সোমবার গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ কে আব্দুল মোমেন এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘সরকারি খরচে (জনগণের ট্যাক্সের টাকায়) বিদেশি কোনো রাষ্ট্রদূতকে বাড়তি নিরাপত্তা (এসকর্ট) দেওয়া হবে না। কারণ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি আমাদের দেশে অনেক ভালো আছে। তা ছাড়া কোনো দেশে বাংলাদেশের কোনো রাষ্ট্রদূতকে বাড়তি নিরাপত্তা দেওয়া হয় না। তবে বিদেশি কূটনীতিকরা তাদের খরচে এসকর্ট হায়ার করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে টাকা দিয়ে আনসার ব্যাটালিয়নের এসকর্ট নিতে পারবেন’।

তিনি বলেন, এখানে রাস্তা-ঘাটে কেউ কাউকে গুলি করে মারে না, গাড়ি আটকে মারে না। তাই আমরা মনে করি, এগুলোর প্রয়োজন নেই। এটা রাখতে গেলে অনেকের মনে কষ্ট। সরকারের এ সিদ্ধান্তের বিষয়টি গত সপ্তাহে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে মিশনগুলোকে অবগত করা হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে চলাফেরার জেন্য কয়েকটা দেশকে বিশেষ নিরাপত্তা ফোর্স দেওয়া হয়ে থাকে। তবে অনেক উন্নত দেশে এটা দেওয়া হয় না। যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, সৌদি আরবে এ সুবিধা দেওয়া হয় না। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আর কাউকে এ সুবিধা দেব না।

হঠাৎ এ সুবিধা না দেওয়ার সিদ্ধান্ত কেন নেওয়া হলো এ বিষয়ে ব্যাখ্যা করে মন্ত্রী বলেন, সম্প্রতি আরও অনেক দেশের কূটনীতিকরা এ সুযোগ চাচ্ছিলেন। এটা একটা প্রেস্টিজের বিষয়। আমাদের এত সম্পদ নেই যে, আমরা ট্যাক্সের পয়সা দিয়ে সবাইকে বাড়তি প্রটোকল সুবিধা দেব।

তিনি বলেন, ৫৮ জনের (ঢাকায় নিযুক্ত বিদেশি রাষ্ট্রদূত বা হাইকমিশনার) সবাই চান এ সুযোগ। আমরা এটা দিতে পারছি না। এ জন্য আমরা ঠিক করেছি কাউকে আর দেওয়া হবে না। আমরা শর্ত দিয়েছি, যদি কেউ নিতে চান, তিনি ভাড়া করতে পারেন। বিদেশেও এ সিস্টেম আছে। আমাদের সিকিউরিটি ফোর্স দরকার। মেট্রোরেল হয়েছে, পদ্মা সেতু হয়েছে, আমাদের নিজেদের নিরাপত্তার প্রয়োজনীয়তা বেড়ে গেছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।